শ্বেত দূতী এর উপকারিতা - Benefits of coral swirl
Benefits of coral swirl

শ্বেত দূতী এর উপকারিতা ও গুণাগুণ

শ্বেত দূতী হচ্ছে এপোসিনাসি পরিবারের একটি গাছ। এটি মূলত একটি গুল্ম। অনেকে শ্বেত দূতীকে কুরচি বা গিরিমল্লিকাও বলে ভুল করে থাকে, কারণ এটিকে Holarrhena pubescens হিসেবে বিভিন্ন প্রকাশনায় ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে।বাংলাদেশ ও ভারতের প্রজাতি ৬-৭ মিটার উচু, পত্রমোচী গাছ। এর কাণ্ড সরল, বাকল অমসৃণ ও হালকা ও ধূসর রঙের হয়ে থাকে। পাতা বেশ বড় ১২-২০ সেমি লম্বা। ভল্লাকার বা লম্ব-ডিম্বাকার।

ফুল

বসন্তের শেষে সমস্ত গাছে ছোট ছোট থোকার সাদা ফুলে ভরে ওঠে এবং শরৎ পর্যন্ত কিছু গাছে ফুল দেখা যায়। ২-৪ সেমি চওড়া ফুলের ২-৩ সেমি লম্বা নলের আগায় ৫ পাপড়ি, সুগন্ধি। ফল সজোড়, সরু, ২০-৩৫ সেমি ৫-৬ মিমি।

বীজ

বীজ ১-১.৩ সেমি লম্বা, বাদামি রোমে জড়ানো। বীজ ও শিকড় থেকে গজান চারার মাধ্যমে চাষ।

বৈজ্ঞানিক নাম: Wrightia antidysenterica

ইংরেজি নাম: coral swirl or tellicherry bark

গুনাগুণ

শ্বেত দূতীর ছালে রয়েছে হোলাডিনেমাইন, কুরচাসিন, কোনিমাইন, হোলডিসিন আর সিটেস্টেরল নামক অ্যালকালয়েড।

এটি আমাশয়ের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়।

শ্বেত দূতীর ছাল রক্ত রক্তপিত্তের ঔষধ। এছাড়া পাতা, শিকড় ও বিভিন্ন রোগ নিরাময়ে ব্যবহৃত হয়।

ছাল থেকে রস বের করে মুখের ঘার জন্য ব্যবহার করে থাকে ।

সর্পদংশন এবং বিছার কামড়ে এ গাছের বাকল ব্যবহার করা হয়।

পাতাগুলি বিভিন্ন চর্মরোগ চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়।

এগুলি জ্বর, ডায়রিয়া এবং অন্ত্রের কৃমির চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়।