কুন্দ
winter jasmine

কুন্দ

winter jasmine

কুন্দ ভারত উপমহাদেশের প্রজাতি। কুন্দ Oleaceae পরিবারের Jasminum গণের চিরসবুজ উদ্ভিদ।

বৈজ্ঞানিক নাম: Jasminum multiflorum

ইংরেজি নাম: winter jasmine, Indian jasmine, downy jasmine, and star jasmine

শেফালী পাতার উপকারিতা

বর্ণনাঃ

লতানো ধরনের চিরসবুজ ঝোপ। পাতা ও কচি ডাল রোমশ। পাতা একক, ৩-৬ সেন্টিমিটার লম্বা, উপর মসৃণ, নিচ রোমশ। বেশি ফুল ফোটে শীত, বসন্ত ও গ্রীষ্মে। চারপাশে ছড়িয়েপড়া ছোট ছোট ডালে গুচ্ছ গুচ্ছ সাদা রঙের সিঙ্গল বা ডাবল ফুলগুলো ৩ সেন্টিমিটার চওড়া। দলনলের আগায় ৭ থেকে ৯টি পাপড়ি থাকে, পাপড়ির আগা চোখা বা ভোতা দুরকমই হতে পারে। এরা গন্ধহীন। Jasminum rubescens প্রজাতির ফুলের পাপড়ির কিনার গোলাপি। এরা সুগন্ধি। বংশবৃদ্ধি কলমে, শিকড় থেকেও চারা গজায়।

বোম্বাই মরিচের উপকারিতা

বিস্ত‌ৃতিঃ

চীন,ভারত, নেপাল, ভুটান, লাওস, মায়ানমার, থাইল্যান্ড এবং ভিয়েতনাম দেশসমূহে পাওয়া যায়। গ্রীষ্মমন্ডলীয় অঞ্চলে এর ব্যাপকভাবে চাষ হয়। এই প্রজাতির ফুল বেশ আকর্ষণীয় ও সুগন্ধের জন্য পরিচিত।

কাঁটা মান্দার গাছ

চাষাবাদঃ

কুন্দ শিকড় থেকে নতুন চারা জন্মে। গভীর বনে,ঝোপ এবং বাড়ির বাগানে চাষ করা হয়। ডিসেম্বর-জুলাই ফুল ও ফল ধরে। ফেব্রুয়ারি-মার্চ মাসে সমস্ত গাছ ফুলে ভরে যায়। গাছে ফুলের স্থায়িত্ব কম। এটি আকর্ষণীয় এবং গভীর ভাবে সুগন্ধযুক্ত ফুলের জন্য ব্যাপকভাবে গ্রীষ্মমন্ডলীয় এবং উপগ্রীষ্মমন্ডলীয় অঞ্চলে চাষ করা হয়।


পরবর্তী খবর পড়ুন : হুরহুরে ফুল