শেয়াল কাঁটা
Mexican prickly poppy

Mexican prickly poppy

শেয়াল কাঁটা

শিয়ালকাঁটা একটি কাঁটাযুক্ত পপি জাতীয় গাছ যা মেক্সিকো থেকে বাকি বিশ্বে একটি আগাছা হিসাবে ছড়িয়ে পড়েছে। প্রাচীন গ্রিক ভাষার আর্জিমা থেকে এসেছে।

ইংরেজি নাম: Mexican prickly poppy

বৈজ্ঞানিক নাম: Argemone mexicana

কাঠগোলাপ

বর্ণনাঃ

শিয়ালকাঁটার গাছ সর্বোচ্চ ১-২ ফুট উঁচু হতে পারে। তবে গড় উচ্চতা ২ ফুট । এর পাতা ও কান্ডের রং হালকা বা সাদাটে সবুজ। শিয়ালকাঁটার কাণ্ড নরম। কাণ্ডে কাটা থাকেনা। পাতা লম্বাটেে একপক্ষল। পাতার প্রান্তভাগ খাঁজকাটা। প্রতিটি খাঁজ সরু হয়ে কাঁটায় পরিণত হয়েছে। পাতার দৈর্ঘ্য ২-৪ ইঞ্চি।


ফুলঃ

শিয়ালকাঁটা ফুল হলুদ রঙের। প্রতিটি বোটায় একটা করে ফুল থাকে। প্রতিটি ফুলের ছয়টা করে পাঁপড়ি থাকে। ফুলের ব্যাস ১.৫ ইঞ্চি। সাধারণত ফাল্গুন মাসে ফুল ফোটে।


ফলঃ

শিয়ালকাঁটার ফল সাধারণত ১ ইঞ্চি হয়। অনেকটা তিলের ফলের মতো দেখতে। ফলের সারা গায়ে কাটা থাকে। ফল চার শিরা। ফলের ভিতরে পাতলা দেয়াল দ্বারা চারটা খোপে ভাগ করা। প্রতিটা খোপের ভিতর ৪০-৫০টা বীজ থাকে। বীজ দেখতে একেবারে সরিষা দানার মতো। চৈএ মাসের শেষ হতে বৈশাখ মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে বীজ পাকতে শুরু করে। একবার  ফল দিয়েই মারা যায়। আয়ু সাধারণত ৩ মাস।


শিয়ালকাঁটা এর উপকারিতাঃ 

১.শিয়ালকাঁটা গাছের রস ৫ গ্রাম পরিমাণ নিযে তার সাথে সমপরিমাণ গরুর কাচা দুধ মিশিয়ে ব্যবহার  করলে  কুষ্ঠ সারে, তবে দীর্ঘদিন করা দরকার।

২.এই শিয়ালকাঁটা এর পাকা বীজের তেল রোগীর বয়স অনুপাতে ৩০-৬০ ফোটা সকালে একবার এবং সন্ধ্যায় একবার করে খাওয়ালে রক্ত আমাশয় অবশ্যই ভারো হয়ে যাবে।

৩.জন্ডিস হলে গাছের মূল কাণ্ড চিরলে যে হলুদ রং -এর রস বের হয়,সেটা সকালে এক চামচ এবং বিকেলে একই পরিমাণ সাতদিন রোগীকে খাওয়ালে উপকার হবে।
 
৪.শিয়ালকাঁটা বীজের তেল ১০ গ্রাম এবং ২০ গ্রাম খাটি শরিষার তেল মিশিয়ে সামান্য গরম করে স্নান করার পর মাখতে হবে। ৩ থেকে ৪ দিন ব্যবহার করলে নিশ্চিত আরোগ্য লাভ হয়।

৫.যে কোনো ক্ষতে শিয়ালকাঁটা গাছের আঠা প্রয়োগ করলে দ্রুত সেরে যায়। এমনকি বিষাক্ত ঘা ৪ -৫ দিনের মধ্যে ভালো হয়।

৬.শিয়ালকাঁটার দিকে মূল সামান্য পানির সাথে বেটে উক্ত পতঙ্গ কামড়ানো জায়গায় প্রলপ স্বরূপ ব্যবহার করলে যন্ত্রণা থাকে না এবং ফোলাও কমে যায়।

৭.শিয়ালকাঁটা গাছের রস এক চামচ এবং চন্দন গাছের রস সমপরিমাণে মিশিয়ে ঘায়ে লাগাতে হবে। তবে ওষুধ প্রয়োগ নিয়মিত একমাস ধরে করা দরকার।

পরবর্তী খবর পড়ুন : কুন্দ