হলদে কলমি

নামঃ

হলুদ কলমি Convolvulacea পরিবারের লতা। এই ফুলের বৈজ্ঞানিক নাম Merremia hederacea। ইংরেজি নাম Ivy Woodrose। কেউ এই লতার ফুলকে কলাডানা বলে থাকেন।

পাতাঃ

পাতা সবুজ, ১-৩ সেমি লম্বা। পাতা দেখেতে পানপাতার মতো। পাপড়ি ৭-১০ সেমি,

ফুলঃ

হলুদ রঙের ফুল, ফোটে হেমন্তে। সপ্তাহ দুয়েক লতায় ফুল ধরে। প্রতিদিন সকালে পাপড়ি থেকে নতুন ফুল ফোটে। রোদ বাড়লে ধীরে ধীরে পাপড়ি নেতিয়ে পড়ে।

বর্ণঃ

ফুলের বর্ণ এক রকম হলেও পাতার আকৃতি ভিন্ন। একসঙ্গে অসংখ্য ফুলের সোনালি আলোয় বর্ণের যে প্রাচুর্য ফুটে ওঠে, তার সৌন্দর্য সত্যিই উপভোগ্য।

হলদে কলমিঃ

বর্ণবৈচিত্র্যের কারণে সাধারণত বাগানের শোভা বৃদ্ধির জন্যই এর চাষ করা হয়। লতা মাটিতে গড়ায়। দ্রুত বর্ধনশীল ও লম্বাটে হওয়ায় অল্প সময়ের মধ্যেই চারপাশে ছড়িয়ে পড়ে। এই লতা সাধারণত গ্রামের পতিত জমি ও সড়কের পাশে জন্মে। বীজ থেকে চারা হয়। ফুল ফুটলে এই লতাটি সবার দৃষ্টিগোচর হয়। বাহারি লতা হিসেবে এটিকে গ্রাম কিংবা শহরের বাড়িতে লাগানো যেতে পারে। তাতে অন্তত হেমন্তের ফুলের দর্শন পাওয়া বাসনা অনেকটাই ঘুচবে। নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুর গিয়ে এক কৃষিজমির কাছে এই ফুলের কয়েকটি ঝোপ দেখেছি। বাংলাদেশের, বিশেষ করে বৃহত্তর সিলেট, ঢাকা ও পার্বত্য এলাকায় হলুদ রঙের আরেকটি কলমি দেখা যায়।