শেওড়া গাছের উপকারিতা

শেওড়া গাছঃ

শ্যাওড়া বা শেওড় বা শাহাড়া হচ্ছে একটি সপুষ্পক চিরসবুজ উদ্ভিদ। চলতি কথায় আমরা একে শাড়া গাছ বলে থাকি । বৈজ্ঞানিক নামঃ Streblus asper Lour.পরিবারঃ Moraceaeইংরেজি নামঃ Streblus asper.ছোট চিরসবুজ বৃক্ষ, ১৪ মিটার পর্যন্ত উঁচু হতে পারে। শাখা-প্রশাখাগুলো ঝুলে থাকতে দেখা যায়। শেওড়া গাছ মানেই ভূতপ্রেতের বিভীষিকা।শেওড়া গাছ দেশের সর্বত্রই জন্মে।

পাতাঃ

পাতা, ৩-৪ সে.মি. চওড়া এবং ৫-৭ সে.মি. লম্বা হতে পারে। পাতা ছিঁড়লে বা গাছ কাটলে দুধের মতো সাদা ঘন কষ বের হয়। পাতা ডিম্বাকর , খসখসে  ও গাঢ় সবুজ।

ফুল ওফলঃ

মার্চ-এপ্রিল মাসে ফূল হয়। ফুল একলিঙ্গবিশিষ্ট। মটরদানার মতো দেখতে ফুল মে-জুন মাসে পাকে। তবে খুব কম গাছেই ফুল ও লল হতে দেখা যায়।এর ফল  হলুদ । 

শেওড়া গাছের উপকারিতা

১.জ্বর হলে গাছের শিকড় পরিস্কার পানিতে ধুয়ে হালকা গরম করে পাথরে ঘষে সেবন করলে জ্বর ছেড়ে যায়। 

২.দাঁতব্যথায় শিকড় ছালের মিহিচূর্ণ কাঁঠালপাতার ছাইসহ দাঁতের আক্রান্ত স্থানে বাহ্যিকভাবে ব্যবহার করলে উপকার পাওয়া যায়।

৩.আমাশয় ও ডায়রিয়ায় ছালের ক্বাথ সেবন করলে বিশেষ উপকার পাওয়া যায়। 

৪.অর্শরোগে ৩০ ফোঁটা পরিমাণ বাকলের রস আধ কাপ দুধের সঙ্গে মিশিয়ে দিনে দুবার খেতে হয়। 

৫.কোষ্ঠবদ্ধতায় পাতা অথবা মূলের রস পরিমাণমতো ঘিয়ের সঙ্গে পাক করে রেখে প্রতিদিন সকালে এক চামচ করে একটু গরম দুধের সঙ্গে মিশিয়ে কিছুদিন খেলে উপশম হয়।

৬.হাঁপানি ও কাশির ক্ষেত্রে ছালের রস দুই থেকে চার ফোঁটা আধা চা চামচ ঘিয়ের সঙ্গে মিশিয়ে খেতে হয়।

৭.হাত পা ফাটলে শেওয়া গাছের আঠা বা ক্ষিরা হলে ভালো হয় , নইলে ছালের রস লাগাতে হয়।


পরবর্তী খবর পড়ুন : হলদে কলমি