উৎসব পার্ক-Utshab Park
Utshab Park

উৎসব পার্ক,রাজশাহী-Utshab Park, Rajshahi

২০১৪ সালে রাজশাহী জেলার বাঘা থানার অদূরে বাজুবাঘা এলাকার ৮০ বিঘা জমি নিয়ে যাত্রা শুরু হয় উৎসব পার্কের(Utshab Park)। প্রতিদিন হাজারো দর্শনার্থীর আগমনে মুখরিত হচ্ছে এই বিনোদন পার্কটি। বাঘাসহ আশেপাশের অন্যান্য এলাকা চারঘাট, লালপুর, পুঠিয়া থেকে দর্শনার্থীরা ঘুরতে আসছেন পার্কটিতে।

বর্তমানে ৮ টি রাইড রয়েছে পার্কটিতে। রাইডগুলোর মধ্যে ট্রেন, নাগর দোলা, পা চালিত নৌকা উল্লেখযোগ্য। প্রতিটি রাইড ফি ১০ টাকা। শীঘ্রই আরো কিছু রাইড যোগ করা। নির্মল আনন্দ-বিনোদনের জন্য শিশু, যুবক কিংবা বৃদ্ধ সবাই ভিড় জমান পার্কটিতে।

প্রবেশ টিকেটের মূল্য ও সময়সূচী

উৎসব পার্ক প্রতিদিন সকাল ৮ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকে। জনপ্রতি প্রবেশ টিকেটের মূল্য ২০ টাকা। আর প্রতিটি রাইড উপভোগের জন্য টিকেট মূল্য ২০ টাকা। ৪ জনের নৌকা ভ্রমণ খরচ ৫০ টাকা এবং পিকনিক স্পটের ভাড়া ৫০০ টাকা। এছাড়া প্রাইভেট কার, ছোট ও বড় মাইক্রো গাড়ির পার্কিং খরচ ১৫০ থেকে ৩৫০ টাকা পর্যন্ত।

কিভাবে যাবেন

উৎসব পার্কে যেতে চাইলে প্রথমে রাজশাহী জেলার বাঘা উপজেলায় আসতে হবে। ঢাকা হতে সড়ক, রেল এবং আকাশ পথে রাজশাহী যাওয়া যায়। ঢাকার গাবতলী, আব্দুল্লাপুর এবং কল্যাণপুর থেকে শ্যামলী, হানিফ, বাবলু এন্টার প্রাইজ, গ্রিনলাইন ও দেশ ট্র্যাভেলসের মতো এসি বা নন এসি বাসে রাজশাহী যাওয়া যায়। বাস ভেদে জনপ্রতি ভাড়া পড়বে ৬০০ থেকে ১২০০ টাকা।

ট্রেনে কমলাপুর রেলওয়ে ষ্টেশন থেকে সিল্কসিটি, ধুমকেতু, বনলতা বা পদ্মা এক্সপ্রেসে রাজশাহী যাওয়া যায়। শ্রেণী ভেদে জনপ্রতি ট্রেন টিকেটের মূল্য ৩৪০ থেকে ১২২৩ টাকা। এছাড়া প্রয়োজন ভেদে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স, ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স ও নভোএয়ারের ফ্লাইটে চড়ে রাজশাহী যেতে পারবেন।

রাজশাহী শহর থেকে বাঘা উপজেলার দূরত্ব প্রায় ৪৭ কিলোমিটার। স্থানীয় বাস সার্ভিস ও অটোতে চড়ে বাঘা উপজেলায় যাওয়া যায়। আর বাঘা উপজেলার যেকোন প্রান্ত হতে রিকশা বা পায়ে হেঁটে ২ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত উৎসব পার্কে পৌঁছাতে পারবেন।

কোথায় থাকবেন

উৎসব পার্কের রেস্ট হাউসে সিঙ্গেল, ত্রিপল ও ডাবল রুমের ব্যবস্থা আছে। রুম ভাড়া ১০০০ টাকা। এছাড়া চাইলে রাজশাহী ফিরে এসে রাত্রিযাপন করতে পারবেন। রাজশাহীতে রাত্রিযাপনের জন্য হোটেল গ্রিন সিটি ইন্টারন্যাশনাল, হোটেল স্টার ইন্টারন্যাশনাল, হোটেল নাইস ইন্টারন্যাশনাল, মুক্তা ইন্টারন্যাশনাল ও পর্যটন কর্পোরেশনের মোটেল সহ বেশকিছু ভাল মানের আবাসিক হোটেল রয়েছে।

কোথায় খাবেন

উৎসব পার্কের অভ্যন্তরে আইসক্রিম, ফুচকা, চটপটি ইত্যাদি বিভিন্ন মুখরোচক খাবার পাওয়া যায়। আর পার্কের কাছে অবস্থিত রেস্তোরাগুলোতে প্রয়োজনীয় খাবার খেতে পারবেন। রাজশাহী শহরের রেস্তোরাঁগুলোতে ফাস্টফুড, চাইনিজ, বাংলা ইত্যাদি বিভিন্ন ধরণের খাবারের ব্যবস্থা আছে।

রাজশাহী জেলার দর্শনীয় স্থানসমূহ-Sightseeing places of Rajshahi district
পুঠিয়া রাজবাড়ী-Puthia Rajbari
সাফিনা পার্ক-Safina Park
বরেন্দ্র গবেষণা জাদুঘর-Varendra Research Museum
শহীদ জিয়া শিশু পার্ক-Shahid Zia Shishu Park
বাঘা মসজিদ রাজশাহী-Bagha Mosque, Rajshahi
ওডভার মুনক্সগার্ড পার্ক-Oddvar Munksgaard Park
উৎসব পার্ক-Utshab Park