ভাষা আন্দোলন জাদুঘর-Language Movement Museum
Language Movement Museum

ভাষা আন্দোলন জাদুঘর কোথায়, কিভাবে যাবেন, টিকেট মূল্য, সময় সূচি 

বাংলা একাডেমির বর্ধমান হাউসের দ্বিতীয় তলায় পূর্ব পাশে ৪টি কক্ষ নিয়ে গড়ে তোলা হয়েছে ভাষা আন্দোলন জাদুঘর। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১০ সালের ১লা ফেব্রুয়ারি ভাষা আন্দোলন জাদুঘর উদ্বোধন করেন। জাদুঘরের নিদর্শনগুলোর মধ্যে আছে ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস, প্রেক্ষাপট, ঘটনাবলি সম্পর্কে বিভিন্ন লেখকের বইয়ের প্রচ্ছদ, ‘পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা বাংলা না উর্দু’ শীর্ষক পুস্তিকার প্রচ্ছদ, ভাষা আন্দোলন বিষয়ক বিভিন্ন রচনার অংশবিশেষ, ভাষা আন্দোলনের ঐতিহাসিক আলোকচিত্র, তৎকালীন প্রকাশিত বিভিন্ন পত্রিকার ভাষা আন্দোলন বিষয়ক প্রতিবেদন।

এছাড়াও রয়েছে মধ্যযুগের কবি আবদুল হাকিম রচিত ‘নূরনামা’র পঙ্ক্তিমালা, বাংলা ভাষার ওপর ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত, মাইকেল মধুসূদন দত্ত ও অতুল প্রসাদ সেনের কবিতা, ১৯৫৬ সালে হামিদুর রহমান প্রণীত কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারের আদি নকশা, বর্তমান শহিদ মিনারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের দৃশ্য, মাতৃভাষার সপক্ষে প্রথম প্রস্তাবক ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত, ভাষাবিদ ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ্, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের আলোকচিত্র, তৎকালীন প্রকাশিত পত্রিকার বিশেষ সংখ্যা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবন চত্বরে সংগ্রামী ছাত্রছাত্রীদের ১৪৪ ধারা ভাঙার প্রস্তুতি, শিক্ষার্থীদের মিছিল, ধর্মঘট চলাকালে পুলিশের লাঠির আঘাতে আহত ছাত্রনেতা শওকত আলীকে শেখ মুজিবুর রহমান কর্তৃক রিকশায় করে হাসপাতালে নিয়ে যাবার ছবি, ইডেন কলেজের মেয়েদের তৈরি শহিদ মিনারসহ আরও নানা দুর্লভ আলোকচিত্র।

একটি কক্ষে রয়েছে ভাষাশহিদ শফিউর রহমানের ব্যবহৃত কোট এবং তাঁর পারিবারিক কিছু আলোকচিত্র, শহিদ আবুল বরকতের প্রাতিষ্ঠানিক পরীক্ষার সনদ, একুশে পদক প্রাপ্তির সনদ ইত্যাদি। আরও রয়েছে রবীন্দ্রনাথের লেখা ১৩৫৪ বঙ্গাব্দে বাংলা ভাষা নিয়ে বাঙালি মুসলিমদের দ্বন্দ্বের ইতিহাস। রয়েছে মাহবুবুল আলম চৌধুরীর ‘কাঁদতে আসিনি, ফাঁসির দাবি নিয়ে এসেছি’ কবিতার হস্তলিখিত কপি, ১৯৫২ সালে ২৬শে ফেব্রুয়ারি শহিদ মিনার ভেঙে ফেলার প্রতিবাদে কবি আলাউদ্দিন আল আজাদের হস্তলিখিত কবিতা ‘স্মৃতি স্তম্ভ’ ও ভাষা আন্দোলন নিয়ে লেখা প্রথম গান।

সময় সূচি

ভাষা আন্দোলন জাদুঘরটি রোববার থেকে বৃহস্পতিবার খোলা থাকে বেলা ১১ টা থেকে ১ টা পর্যন্ত, মধ্যাহ্ন বিরতির পর বেলা ২ টা ৩০ মিনিট থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত। ফেব্রুয়ারি মাসে বইমেলা চলাকালীন সাপ্তাহিক বন্ধ ছাড়াই প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে ৬টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত খোলা থাকে।

টিকেট মূল্য

জাদুঘরে প্রবেশের জন্য কোন ফি দিতে হয় না।

কিভাবে যাবেন?

ঢাকা শহরের বিভিন্ন প্রান্ত হতে শাহবাগ গামী অসংখ্য বাস সার্ভিস রয়েছে। এ সকল বাসে শাহবাগ মোড় এসে রিকশা বা পায়ে হেটে বাংলা একাডেমিতে অবস্থিত ভাষা আন্দোলন জাদুঘরে যাওয়া যায়।

বাংলাদেশের সেরা ১০ দর্শনীয় স্থান
বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর-Bangladesh National Museum
বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘর-Bangabandhu Military Museum
বাংলাদেশ পুলিশ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর-Police Museum of liberation war
বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর-Bangabandhu Memorial Museum