AGAMI24.COM | THE MOST INFORMATIVE BENGALI BLOG IN BANGLADESH

রমজানের গান লিরিক্স

রহমত নিয়ে এলো মাহে রমজান-Rohmot niye elo mahe ramjan
রহমত নিয়ে এলো মাহে রমজান-Rohmot niye elo mahe ramjan
রমজানুল মুবারক-Ramjanul Mubarak
রমজানুল মুবারক-Ramjanul Mubarak
রমজানের নতুন সঙ্গীত - Elo Ramadan - এলো রমাদান
রমজানের নতুন সঙ্গীত - Elo Ramadan - এলো রমাদান
রমজানের সেরা গজল- Ramjan Selected Song
রমজানের সেরা গজল- Ramjan Selected Song
মাহে রমজান এলো-Mahe Romjan Elo
মাহে রমজান এলো-Mahe Romjan Elo
এসেছে রমজান-Esheche Ramjan
এসেছে রমজান-Esheche Ramjan
মোবারাকবাদ মাহে রমজান-Mubarakbad Mahe Ramjan

মোবারাকবাদ মাহে রমজান-Mubarakbad Mahe Ramjan

চারপাশে আজ শুধু মেশকের ঘ্রাণ Meshker Ghran lyrics |  সাইমুম শিল্পীগোষ্ঠী

চারপাশে আজ শুধু মেশকের ঘ্রাণ Meshker Ghran lyrics | সাইমুম শিল্পীগোষ্ঠী

এই রমাদান হোক জীবনের সেরা রমাদান -Sera Ramadan | Jaima

এই রমাদান হোক জীবনের সেরা রমাদান -Sera Ramadan | Jaima

রহমের বৃষ্টিতে ভিজলো জমিন লিরিক্স-Rohomer Brishty Gojol Jaima Noor

রহমের বৃষ্টিতে ভিজলো জমিন লিরিক্স-Rohomer Brishty Gojol Jaima Noor

রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ লিরিক্স- Romjaner oi rojar sheshe elo khushir eid lyrics

রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ লিরিক্স- Romjaner oi rojar sheshe elo khushir eid lyrics

মাহে রমজান এলো বছর ঘুরে লিরিক্স-  Mahe romjan elo bochor ghure lyrics

মাহে রমজান এলো বছর ঘুরে লিরিক্স- Mahe romjan elo bochor ghure lyrics

রোজাদার কেমন হলে আল্লাহ খুশি হয় লিরিক্স- Roja tar kemon hole Allah khusi hoy lyrics

রোজাদার কেমন হলে আল্লাহ খুশি হয় লিরিক্স- Roja tar kemon hole Allah khusi hoy lyrics

বছর পেরিয়ে কত রমাদান আসে, কত রমাদান চলে যায় লিরিক্স

বছর পেরিয়ে কত রমাদান আসে, কত রমাদান চলে যায় লিরিক্স

আয় সবে আয় ভুলবো আজি - লিরিক্স MOTOVED || MUNAEM BILLAH

আয় সবে আয় ভুলবো আজি - লিরিক্স MOTOVED || MUNAEM BILLAH

বদর বিজয় শেষে এলো যে ক্বদর লিরিক্স-Bodor Bijoy Sheshe Elo Je Kodor

বদর বিজয় শেষে এলো যে ক্বদর লিরিক্স-Bodor Bijoy Sheshe Elo Je Kodor

মেঘের পাখায় ভর করে  এলোরে রমজান লিরিক্স

মেঘের পাখায় ভর করে এলোরে রমজান লিরিক্স

সর্বশেষ
ভোলা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
ভোলা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
আর্মি মেডিকেল কলেজ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
আর্মি মেডিকেল কলেজ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
জেলা প্রশাসকের কার্যালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
জেলা প্রশাসকের কার্যালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
রুরাল পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
রুরাল পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
এ মাসের সেরা চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
এ মাসের সেরা চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
বাংলাদেশ চা বোর্ড নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
বাংলাদেশ চা বোর্ড নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
সোনালী ব্যাংক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
সোনালী ব্যাংক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪-RHDC Job 2024
রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪-RHDC Job 2024
সিভিল সার্জনের কার্যালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
সিভিল সার্জনের কার্যালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
কর কমিশনারের কার্যালয়ে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
কর কমিশনারের কার্যালয়ে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
রমজানের গান লিরিক্স

ফারসি শব্দ রোজার আরবি অর্থ হচ্ছে সওম, বহুবচনে সিয়াম। সওম বা সিয়ামের বাংলা অর্থ বিরত থাকা। আর সিয়াম সাধনার অর্থ– সুবহেসাদিক থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত সকল ধরনের পানাহার, পাপাচার এবং খারাপ কাজ থেকে নিজেকে বিরত ও সংযত রাখা। এ পবিত্র মাস মানুষকে সকল রকম গর্হিত ও অনৈতিক কার্যকলাপ থেকে বিরত রাখে এবং সকলকে সাধ্যমত ইবাদাত বন্দেগি করার জন্য উৎসাহিত করে। প্রকৃতপক্ষে রমজান হলো পূর্বের সকল গুনাহর জন্য ক্ষমা চেয়ে সাচ্চা মুসলমান হয়ে জীবনযাপনের প্রতিজ্ঞা করার মাস। এ মাসের সময়গুলো খুব বেশি বেশি ইবাদত-বন্দেগিতে অতিবাহিত করা উচিত। ফরজ নামাজ ও রোজা, এশার নামাজের পর তারাবিহ পড়া, সেহরির আগে তাহাজ্জুদ পড়া, যথাসম্ভব জিকির ও কুরআন মাজীদ তেলাওয়াত করে সময় কাটানো উচিত। সেই সঙ্গে দান সাদকা করা, আশেপাশের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের হক আদায় করা বাঞ্ছনীয়। অশ্লীলতা, ধোঁকাবাজি, প্রতারণা, অন্যের হক খাওয়া, সুদ ও জুয়াসহ সকল প্রকার হারাম কাজ থেকে তো সারা বছরই বেঁচে থাকা ফরজ, রমজান মাসে এর অপরিহার্যতা আরও বেড়ে যায়। কারণ বরকতপূর্ণ সময়ের গুনাহর কাজ অত্যন্ত ধ্বংসাত্মক হয়ে পড়তে পারে। তাই আমরা সবসময় প্রার্থনা করি আমাদের সবার জীবনে যেন রমজানের গুরুত্ব ও ফজিলত সমানভাবে ছড়িয়ে পড়ে। পবিত্র রমজানের ফজিলত ও মর্যাদা সম্পর্কে হাদিসের কিতাবগুলোতে অনেক হাদিস বর্ণিত হয়েছে। এর ভেতর থেকে কিছু হাদিস এখানে উল্লেখ করা হলো- প্রিয় নবীজি (সা.) এর প্রিয় সাহাবী হযরত আবু হুরায়রা (রা.) বলেছেন, রাসুল (সা.) এরশাদ করেছেন, যখন রমজান মাস আসে আসমানের দরজাগুলো খুলে দেওয়া হয় এবং দোজখের দরজাগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়, আর শয়তানকে শৃঙ্খলিত করা হয়। (বুখারী, মুসলিম) অপর হাদিসে এসেছে, হযরত সাহ্ল ইবনে সা’দ (রা.) থেকে বর্ণিত, নবী কারীম (সা.) এরশাদ করেছেন, বেহেশতের ৮টি দরজা রয়েছে। এর মধ্যে ১টি দরজার নাম রাইয়ান। রোজাদার ব্যতিত আর কেউ ওই দরজা দিয়ে প্রবেশ করতে পারবে না। (বুখারী, মুসলিম) বিখ্যাত হাদিস বিশারদ সাহাবী হযরত আবু হুরায়রা (রা.) বর্ণনা করেছেন, হুজুর (সা.) বলেছেন, যে ব্যক্তি ঈমানের সঙ্গে ও সওয়াবের নিয়তে রমজান মাসের রোজা রাখবে তার পূর্বের সব গুনাহ মাফ করে দেওয়া হবে। যে ব্যক্তি ঈমানের সঙ্গে ও সওয়াবের নিয়তে রমজান মাসের রাতে এবাদত করে তার পূর্বের সব গুনাহ মাফ করে দেওয়া হবে। যে ব্যক্তি ঈমানের সঙ্গে ও সওয়াবের নিয়তে কদরের রাতে ইবাদত করে কাটাবে তার পূর্বের সব গুনাহ মাফ করে দেওয়া হবে। (বুখারী, মুসলিম) হাদিসে আরও এসেছে, রাসুল (সা.) বলেন, রোজা সম্পর্কে আল্লাহ স্বয়ং এরশাদ করেছেন: “রোজা আমার জন্যে এবং আমিই তার পুরস্কার দান করবো।” রোজা (জাহান্নামের আজাব থেকে বাঁচার জন্য) ঢাল স্বরুপ। তোমাদের কেউ রোজা রেখে অশ্লীল কথাবার্তায় ও ঝগড়া বিবাদে যেন লিপ্ত না হয়। কেউ তার সঙ্গে গালমন্দ বা ঝগড়া বিবাদ করলে শুধু বলবে, আমি রোজাদার। অপর একটি হাদিসে হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আমর (রা.) থেকে বর্ণিত হয়েছে, রাসুলে পাক (সা.) বলেছেন, রোজা এবং কোরআন (কেয়ামতের দিন) আল্লাহর কাছে বান্দার জন্য সুপারিশ করবে। রোজা বলবে, হে পরওয়ারদিগার! আমি তাকে (রমজানের) দিনে পানাহার ও প্রবৃত্তি থেকে বাধা দিয়েছি। সুতরাং তার ব্যাপারে আমার সুপারিশ কবুল করুন। কোরআন বলবে, আমি তাকে রাতের বেলায় নিদ্রা হতে বাধা দিয়েছি। সুতরাং আমার সুপারিশ তার ব্যাপারে কবুল করুন। অতএব, উভয়ের সুপারিশই কবুল করা হবে এবং তাকে জান্নাতে প্রবেশ করানো হবে। (বায়হাকী) হাদিস শরীফে আরও এসেছে, হযরত আবু হুরায়রা (রা.) বলেন, রাসুল (সা.) বলেছেন, যখন রমজানের প্রথম রাত আসে শয়তান ও অবাধ্য জিনদের শৃঙ্খলে আবদ্ধ করা হয়। দোজখের দরজাগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়। অতঃপর এর কোনো দরজাই খোলা হয় না। বেহেশতের দরজাগুলো খুলে দেওয়া হয়। অতপর এর কোনো দরজাই বন্ধ করা হয় না। এ মাসে এক আহ্বানকারী আহ্বান করতে থাকে, হে ভালোর অন্বেষণকারী! অগ্রসর হও। হে মন্দের অন্বেষণকারী! থামো। আল্লাহ তায়ালা এ মাসে বহু ব্যক্তিকে দোযখ থেকে মুক্তি দেন। আর এটা এ মাসের প্রতি রাতেই হয়ে থাকে। (তিরমিযী ও ইবনে মাজাহ)

বাড়ি চাকরির খবর লাইফস্টাইল লগইন