কিভাবে চুলের যত্ন নিবেন
চুলের যত্ন ঘরোয়া উপায়

চুলের যত্ন নেওয়ার উপায় গুলো আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করবো। মানুষের সৌন্দর্য অনেক গুণে বৃদ্ধি করে তার সুন্দর চুল। কিন্তু আমরা চুলের যত্ন সেভাবে নেই না যখন আমাদের চুল পড়া শুরু হয় তখন আমরা নানা উপায় খুঁজি চুলের যত্ন নেওয়ার জন্য। তাই সব সময় আমাদের চুলের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে এবং সঠিক নিয়মে যত্ন নিতে হবে। আমরা যদি সঠিকভাবে চুলের যত্ন নিয়ে থাকি তাহলে আমাদের চুল আরও সিল্কি এবং ঘন হয়ে উঠবে যা আমাদেরকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলবে।

আশা করি সবাই আমার এই পোস্ট টি মনোযোগ সহকারে পড়বেন তাহলে অবশ্যই উপকৃত হবেন।

১. প্রথমে চুল পানি দিয়ে ভালো কর ভিজিয়ে নিন। এবার একটি ডিম ফেটে নিয়ে পুরো মাথায় লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর ঠান্ডা পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এতে চুলের রুক্ষতা দূর হবে।

২. গরম পানি চুল ধোয়ার জন্য ভুলেও ব্যবহার করবেন না। এতে চুল রুক্ষ হয়ে যায় এবং চুল পড়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয়। তাই সবসময় মাথায় ঠান্ডা পানি ব্যবহার করুন।

৩. এক কাপ কন্ডিশনারের সঙ্গে দুই থেকে তিন টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। এবার ভেজা চুলে এই প্যাক লাগিয়ে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক চুল নরম ও মসৃণ করতে সাহায্য করে।

৪. প্রতিদিন চুলে শ্যাম্পু ব্যবহার করবেন না। এতে চুলের প্রাকৃতিক তেল নিঃসরণে সমস্যা হয়। তাই দুই থেকে তিনদিন পরপর চুলে শ্যাম্পু ব্যবহার করুন। যা চুল পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করবে।

৫. একটি বাটিতে আমন্ড অয়েল নিয়ে ৪০ সেকেন্ড ওভেনে গরম করে নিন। এবার এই তেল চুলে লাগিয়ে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর শ্যাম্পু করে ফেলুন। বেশি করে কন্ডিশনার লাগিয়ে ঠান্ডা পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

৬. আধা কাপ মধুর সঙ্গে এক থেকে দুই টেবিল চামচ অলিভ অয়েল ও একটি ডিমের কুসুম মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। এই প্যাক মাথার তালু ও চুলে লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এবার কুসুম গরম পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক চুলে প্রোটিনের কাজ করবে।

৭. ভেজা অবস্থায় চিড়ুনি দিয়ে চুল আঁচড়াবেন না। এতে চুলের গোড়া অনেক বেশি নরম হয়ে যায় এবং চুল পড়ে যেতে শুরু করে। তাই চুল শুকানোর পর বড় দাঁতের চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ে নিন।

৮. চুল শ্যাম্পু করে ভালোভাবে ধুয়ে নিন। এবার এক টেবিল চামচ লেবুর রস চুলে ম্যাসাজ করে নিন। এরপর তোয়ালে দিয়ে মুছে চুল শুকিয়ে ফেলুন। এতে চুল ঝলমলে হবে।

৯. গরম পানির সঙ্গে সমান পরিমাণ আপেল সিডার ভিনেগার মিশিয়ে চুলে লাগান। ৫ মিনিট পর পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এটি চুলের শুষ্কতা দূর করে চুল সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

১০. চুলের সবচেয়ে বেশি ক্ষতি করে খুশকি ও যেকোনো সংক্রমণ। তাই স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুলের জন্য সবসময় মাথার ত্বক পরিষ্কার রাখার চেষ্টা করুন। বাইরে গেলে স্কার্ফ দিয়ে চুল ঢেকে রাখুন এবং রোদে গেলে ছাতা ব্যবহার করুন।


পরবর্তী খবর পড়ুন : মন ভালো রাখার উপায়