আবার জেগে উঠো, 

-মুহিব খান

এই ঢাকা হলো মসজিদের শহর 

ঢোল-তবলার নয়

মোরা প্রাণ ভরে শুনি আজানের ধ্বনি

যখনি আজান হয়

এই দেশ আলোকিত ঈমানী আলোয়

মোমবাতি জ্বেলে নয়

সারা দুনিয়ার কাছে ইসলাম হলো

এদেশের পরিচয়

এই ঢাকঢোল যাবে মন্দিরে আর

মোমবাতি যাবে গির্জায়

এই বিজাতির রীতি রুখবেই জাতি

যায় যদি যাক শির যায়

আজ চেতনার নামে নাস্তিকতার

চলছে চক্রান্ত

তাই প্রতিরোধ ক্রোধে জাগবেই জাতি

থাকবেনা বসে শান্ত।

এসো ঈমানের ডাকে এক হও সবে

একসাথে পথ ছুটো...।

জাগো জাগো, জাগো  জাগো,

আবার জেগে উঠো...। (২)

আবার জেগে উঠো।  (৪)

আজ নব্বইভাগ মুসলমানের 

পবিত্র এই দেশে,

দেখো মুর্তি পূজার চলছে 

মহড়া ভাস্কর্যের বেশে।

আজ মঙ্গল প্রদীপ,তীলক, ঢোলক,

রাখি, প্রতিমার স্পর্শে..

দেখো সাম্প্রদায়িক ছোবল লেগেছে

বাংলার নববর্ষে।

আজ অশ্লীলতার চলছে তুফান

জাতি ধ্বংসের জন্য

আর স্বার্থান্বেষী নারীবাদীরাই

নারীকে করেছে পণ্য।

আজ মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে বাণিজ্য

চলছে রাজনীতিতে..

আর আটঘাট বেঁধে নেমেছে মিডিয়া

ইসলাম মুছে দিতে।

আজ একটাই পথ লড়ার শপথ

পথ নেই আর দুটো...।

জাগো জাগো, জাগো  জাগো,

আবার জেগে উঠো...। (২)

আবার জেগে উঠো।  (৪)

আজ সংবিধানেও বদলে গিয়েছে

বিসমিল্লাহর মানে,

আর পাঠ্যসূচিতে ধর্মহীনতা 

ঢুকে গেছে সবখানে।

স্রষ্টা,বিধাতা, প্রভু বলে বলে

আল্লাহ দিয়েছে বাদ,

ওদের ঔদ্ধ্যত্যের লক্ষ্য এবার

রাসূল মুহাম্মাদ।

ওরা বিদেশী প্রভুর ক্রীতদাস হয়ে 

হুকুম তামিল করছে,

ওরা বিজাতির কাছে মাথা নত করে 

স্বজাতির সাথে লড়ছে। 

ওরা কোন কিছুতেই হবেনা সফল

রবেনা তাদের চিহ্ন,

ওরা দেশ থেকে হবে বিতাড়িত

হবে জাতি থেকে বিচ্ছিন্ন।

এসো ভেদাভেদ ভুলে আলোর মিছিলে

সকল আঁধার টুটো...।

জাগো জাগো, জাগো  জাগো,

আবার জেগে উঠো...। (২)

আবার জেগে উঠো।  (৪)