মেয়েদের ব্রেস্ট ব্যথার কারণ - Causes of breast pain in girls
Causes of breast pain in girls

মেয়েদের ব্রেস্ট ব্যথার কারণ - Causes of breast pain in girls

নারীরা মাঝেমধ্যেই স্তনে ব্যথা অনুভব করেন।  স্তনে ব্যথা করলে অনেক নারীই ভাবেন তার হয়তো স্তন ক্যান্সার হয়েছে।  স্তন ব্যথা অধিকাংশ ক্ষেত্রে এ রোগের সঙ্গে সম্পর্কিত নয়।  স্তন ব্যথার সঠিক কারণ জানা থাকলে অহেতুক আতঙ্ক দূর হবে।

স্তন ব্যথা হরমোনের পরিবর্তনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট।  আবার কিশোরীদের মাসিকের সময়ও এই ব্যথা হতে পারে।

স্তন ব্যথার কারণ

তবে স্তনে ব্যথা মানেই স্তন ক্যানসার হবে তা কিন্তু নয়। তাই চলুন জেনে নেয়া যাক এই ব্যথা হওয়ার কারণ ও প্রতিকার-

১. স্তনের সিস্ট

স্তনের সিস্ট একধরনের নরম তরলসমৃদ্ধ থলি। সিস্ট সব আকারের হতে পরে। এতে অনেক সময় ব্যথা হয়, আবার অনেক সময় ব্যথা নাও হতে পারে। ঋতুস্রাবের চক্রের সময় সিস্ট বড় হয় এবং মেনোপজের সময় সাধারণত কমে যায়।

২. ওষুধ

কিছু ওষুধ সেবনের কারণেও স্তনে ব্যথা হতে পারে। যেমন : বন্ধ্যত্বের চিকিৎসার জন্য কিছু ওষুধ, ওরাল হরমোনাল কনট্রাসেপটি, মেনোপজের পর এস্ট্রোজেন ও প্রোজেসটেরনের ওষুধ, অ্যান্টিডিপ্রেসেন্ট, এনাড্রল ইত্যাদি ওষুধের কারণে অনেক সময় স্তনে ব্যথা হয়।

৩. স্তনে অস্ত্রোপচার

অস্ত্রোপচার এবং স্কার টিস্যু তৈরির সময় অনেক ক্ষেত্রে স্তনে ব্যথা হয়ে থাকে।

৪. কসটোকনড্রাইটিস

এটি একধরনের আরথ্রাইটিস। এতে পাঁজর ও স্তনের হাড়ের সংযুক্তস্থলে ব্যথা হয়। তবে এই সমস্যা স্তনের সঙ্গে যুক্ত নয়। তবে এত ব্যথা হয় যে মনে হয় স্তনে ব্যথা হচ্ছে। সাধারণত প্রবীণ নারী এবং যাঁরা সঠিক অঙ্গবিন্যাসে থাকেন না, তাঁদের এই ব্যথা হয়।

৫. ফাইব্রোসিস্টিক ব্রেস্ট চেইঞ্জ

যেসব নারী প্রিমেনোপোজাল (মেনোপজের আগে) অবস্থায় থাকেন এবং যাঁরা মেনোপজের পরে হরমোনের চিকিৎসা নেন, তাঁদের স্তনে অনেক সময় ফোলাভাব হতে পারে, লাম্প হতে পারে। এই অবস্থাকে ফাইব্রোসিস্টিক ব্রেস্ট চেইঞ্জ বলে। তবে এটি তেমন ক্ষতিকর নয়।

৬. অন্তর্বাস

সঠিক অন্তর্বাস ব্যবহার  না করার কারণে অনেক সময় স্তনে ব্যথা হতে পারে। খুব আঁটসাঁট অথবা খুব ঢিলেঢালা অন্তর্বাস কোনোটাই স্তনের জন্য ভালো নয়। তাই সঠিক অন্তর্বাস ব্যবহার করুন।

৭. স্তন ক্যানসার

অধিকাংশ স্তন ক্যানসারে ব্যথা হয় না। তবে প্রদাহকারী স্তন ক্যানসার ও স্তনের টিউমার একধরনের অস্বস্তি তৈরি করতে পারে। স্তনে লাম্প, ব্যথা, বোঁটা থেকে রক্তপাত, লাল ভাব ইত্যাদি দেখলে অবশ্যই চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

৮. বুকের দুধ খাওয়াচ্ছেন যেসব মা

অনেক সময় যেসব মা বুকের দুধ খাওয়ান, তাঁদের ক্ষেত্রে স্তনে ব্যথা হতে পারে। অনেকক্ষণ শিশুকে বুকের দুধ না খাওয়ালে বা দুধ জমাট হয়ে থাকলে এ সমস্যা হতে পারে।

কী করণীয়

স্তনের মাপ অনুযায়ী অন্তর্বাস ব্যবহার করতে হবে। খুব ছোট বা আঁটসাঁট অন্তর্বাস এড়িয়ে চলতে হবে।

শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ালে প্রতিবার দুধ দেওয়ার আগে ও পরে স্তন ও নিপল পরিষ্কার করতে হবে। সব সময় পরিষ্কার কাপড় পরতে হবে।

স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে হবে, যাতে চর্বি কম ও পুষ্টি বেশি থাকে।

দেহের ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। তাহলে হরমোন সমস্যা নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

ভিটামিন বি–৬, ভিটামিন বি–১ (থায়ামিন) এবং ভিটামিন–ই–সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে।

যেকোনো ব্যথা, ফোলা, রঙের পরিবর্তন লক্ষ করলে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে।