চরফ্যাসনের দক্ষিণ আইচায় প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ আহত- ৫
আহতরা



চরফ্যাসনের দক্ষিণ আইচায় পুর্ব শক্রতার জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় পাঁচজন গুরুতর আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে দক্ষিণ আইচার চর মনিকা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডেও দৌলতপুর আবসান প্রকেল্পে  এঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে চরফ্যাসন হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। এঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে আহতদের পরিবার সুত্রে জানা গেছে। আহতরা হলেন- মো.সুমন (২৮), মো. রবি আলম (২৬), মো.জুয়েল (২২), কুলছুম বেগম (৩৩),এবং সবজান বেগম (২৪)। আজ বৃহস্পতিবার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সবজান বেগম জানান, প্রতিবেশী নুরু মাঝি গংদের সাথে আমাদের বিরোধ চলমান আছে। ঘটনারদিন দুপুরে আমি বেড়ি বাঁধ থেকে প্রতিপক্ষ নুরু মাঝির জায়গায় দিয়ে আমার বাবার বাড়িতে যাওয়ার পথে তিনি এবং তার পরিবারের সদস্যরা আমার গতি রোধ করেন এবং আমাকে যেতে বাধা দেন। এনিয়ে তাদের সাথে আমার তর্ক বাধে। তর্কের জের ধরে মো.নুরু মাঝি,মো.রাকিব,রাহিমা, মাহিনুর,খতেজা,রিপা, আংক্কুর সহ লাঠিসোঠা দিয়ে আমাদের ওপর অর্তকিত হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারীরা আমার ডান কানের ধূল ও আমার বোনের গলায় থাকা স্বর্নের চেইন সহ প্রায় ৩৬ হাজার টাকার স্বর্নলকার লুট করে নিয়ে যায় বলে দাবি করেন তিনি। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে চরফ্যাসন হাসপাতালে ভর্তি করেন।
অভিযোগ প্রসংঙ্গে নুরু মাঝি জানান, তাদেরকে আমার পরিবারের সদস্যরা মাধরের বিষয়টি সঠিক নয়। তাদেও সাথে আমারদের পুর্ব থেকেই বিরোধ চলমান আছে। আমাকেসহ আমার পরিবারকে ঘায়েল করতে তারা নিজেরাই আমাদের সাথে বিরোধ সৃষ্টি করেছে।
দক্ষিণ আইচা থানার ওসি হারুন অর রশিদ জানান, ঘটনাটি শুনেছি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


পরবর্তী খবর পড়ুন : ইসলামে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদের স্থান নেই -এমপি জ্যাকব