চরফ্যাসনে দেবরের শিশুপুত্রকে হত্যা চেষ্টা,থানায় অভিযোগ দায়ের
আহত শিশু আল ইসলাম


চরফ্যাসনের দুলারহাট থানার বিচ্ছিন্ন চর মুজিবনগর ইউনিয়নে আল ইসলাম নামের ৭বছরের শিশুকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে আপন চাচী নাজমা বেগমের বিরুদ্ধে। এঘটনায় বুধবার সন্ধ্যায় শিশুর বাবা আওলাদ হোসেন বাদী হয়ে বড় ভাইয়ের স্ত্রী নাজমা বেগমকে আসামী করে দুলারহাট থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।বুধবার দুপুরে মুজিবনগর ইউনিয়নে ১নং ওয়ার্ড জনতা বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
শিশুটির বাবা আওলাদ হোসেন অভিযোগ করেন, তার ভাইয়ের স্ত্রী নাজমার সাথে তার পারিবারিক বিরোধ চলছে। বুধবার দুপুরে তার শিশু পুত্র আল ইসলাম বসত বাড়ির পার্শ্ববর্তী রাস্তার ওপর প্রতিবেশী সহপাঠী বন্ধুদের সাথে খেলছিল। পুর্ব শত্রæতার জের ধরে বড় ভাই রুহুল আমিনের স্ত্রী নাজমা বেগম তার শিশু পুত্রকে কৌশলে হত্যা করার উদ্দেশ্যে  নির্জন স্থানে  ঢেকে নিয়ে যায় এবং ধারালো চাকু দিয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়। শিশু পুত্রের ঝাপটাঝপটিতে তার গলায় ও ডান গালে একাধিক ক্ষত হয়। তার সাথে থাকা অপর শিশুরা বিষয়টি দেখে চিৎকার দিলে স্থানীয়রা  ছুঠে এলে নাজমা আহত অবস্থায় ছেলেটিকে রেখে পালিয়ে যায়। প্রতিবেশীদের কাছ থেকে খবর পেয়ে আহত  ছুটে এসে তার শিশু পুত্র আল ইসলামকে উদ্ধার করে চরফ্যাসন হাসপাতালে ভর্তি করেন। থানায় অভিযোগ দায়েরের পর অভিযুক্ত নাজমা বেগম আত্মগোপনে থাকায় তার বক্তব্য জানাযায়নি। তবে তার স্বামী রুহুল আমিন জানান, আমি ঘটনার সময় বাড়িতে ছিলামনা। পরবর্তীতে বাড়িতে এসে স্থানীয় ও স্বজনদের কাছ থেকে বিষয়টি জানতে পেরেছে।এবং ঘটনার সত্যতা ও পেয়েছি। দুলারহাট থানার ওসি মোরাদ হোসেন জানান, স্বজনরা আহত শিশুটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এলে তাকে চিকিৎসার জন্য চরফ্যাসন হাসপাতালে ভর্তি করতে বলা হয়েছে। এঘটনায় শিশুর বাবা সন্ধ্যায় বাদী হয়ে বড় ভাইয়ের স্ত্রী নাজমা বেগমকে আসামী করে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। বিষয়টি তদন্ত চলছে। তদন্ত স্বাপেক্ষে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।  


পরবর্তী খবর পড়ুন : পৌরসভা নির্বাচনঃচরফ্যাসনে আ’লীগ প্রার্থীর নিরংকুশ বিজয়, ভোট বর্জন বিএনপির