মদনটাক
Lesser Adjutant

Lesser Adjutant

মদনটাক

মদনটাক মদনটেঁক বা ছোট মদনটাক সিকোনিডাই পরিবারভূক্ত লেপ্টোপ্টাইলোস গণের এক বৃহদাকৃতির জলচর পাখি।

ইংরেজি নাম: Lesser Adjutant

বৈজ্ঞানিক নাম: Leptoptilos javanicus

বর্ণনাঃ

লম্বায় ৮৭-৯৩ সেন্টিমিটার। পায়ের উচ্চতা ১১০-১২০ সেন্টিমিটার। ওজন চার থেকে সাড়ে পাঁচ কিলোগ্রাম। মাথার তালু, কপাল, গলা পালকহীন। গলা লালচে-হলুদ চমড়ায় আবৃত। ঠোঁট শক্ত মজবুত, রং ময়লাটে হলুদ। প্রজনন মৌসুমে ঠোঁটের গোড়া লালচে হয়। পিঠ থেকে লেজ পর্যন্ত উজ্জ্বল ধাতব কালো। ডানার গোড়ায় কালো তিলা। লেজের প্রান্ত ময়লাটে সাদা। গলার নিচ থেকে লেজের তলা পর্যন্ত সাদাটে। পা ও পায়ের পাতা স্লেট কালো। অপ্রাপ্তবয়স্কদের মাথায় ও ঘাড়ে পালক দেখা যায়। স্ত্রী-পুরুষ পাখি দেখতে একই রকম।

প্রজননঃ

প্রজনন মৌসুম জুন থেকে জুলাই। বাসা বাঁধে গাছের উঁচুতে ডালপালা দিয়ে। বাসার আকার বড়সড়ো, অগোছালো। ডিম পাড়ে ৩-৪টি। ডিম ফুটতে সময় লাগে ২৮-৩০ দিন। শাবক উড়তে শিখে ৫০ দিনের মধ্যে।

খাদ্য তালিকাঃ

মাছ, ব্যাঙ, সরীসৃপ,ইঁদুর এবং অন্যান্য মেরুদণ্ডী প্রাণী।

স্বভাবঃ

কখনো একাকী, কখনো জোড়ায় জোড়ায় আবার কখনো দলবদ্ধভাবে বিচরণ করে। সাধারণতঃ এটি একাকী চলাফেরা করতে ভালবাসে। এরা তেমন আওয়াজ করে না কিন্তু বাসায় এরা ঠোঁটের সাহায্যে কিছু আওয়াজ করে।

বিস্তৃতিঃ

দক্ষিণ এশিয়া ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশসমূহে এদের দেখা মেলে। এদেরকে বড় ধরনের নদ-নদী এবং হ্রদ এলাকায় দেখা যায়। ভারত, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ, মায়ানমার, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম, মালয়েশিয়া, লাওস[, ইন্দোনেশিয়া এবং কম্বোডিয়ায় এদের প্রধান আবাসস্থল।


পরবর্তী খবর পড়ুন : সবুজ সুঁইচোরা