গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতা এর জীবনী - Biography of Gabriel Batistuta
Gabriel Batistuta Argentine former footballer

গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতা এর জীবনী - Biography of Gabriel Batistuta

গাব্রিয়েল ওমার বাতিস্তুতা (স্পেনীয়: Gabriel Omar Batistuta, জন্ম ১ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯), একজন প্রাক্তন আর্জেন্টিনীয় পেশাদার ফুটবলার। ভক্তদের কাছে তিনি বাতিগোল বা এল আনহেল গাব্রিয়েল নামে সুপরিচিত। এই প্রখ্যাত আর্জেন্টিনীয় স্ট্রাইকার তার ক্যারিয়ারের অধিকাংশ সময়ই কাটিয়েছেন ইতালীয় ক্লাব ফিওরেন্তিনায়। সেখানে ৩১৮ খেলায় ১৮৪ গোল করে তিনি ইতালীয় সিরি এ-এর সর্বকালের এগারতম সর্বোচ্চ গোলদাতা।

১৯৯৩ সালে আর্জেন্টিনা বাতিস্তুতাকে নিয়ে আরেকটি শিরোপা জেতে। শিরোপাটির নাম আর্তেমিও ফ্রেঞ্ছি ট্রফি। এই টুর্নামেন্ট এখন বিলুপ্ত হয়ে গেছে। এটি খেলা হত সাউথ আমেরিকা এবং ইউরোপের চ্যাম্পিয়ন দুটি দলের মধ্যে।

১৯৯৩ সালেই বাতিস্তুতা তার ২য় কোপা আমেরিকা খেললেন আর্জেন্টিনার হয়ে। এবারের কোপা আমেরিকার আসর বসল ইকুয়েডরে। এবারও আর্জেন্টিনার সর্বোচ্চ গোলদাতা এবং কোপা আমেরিকার ২য় সর্বোচ্চ গোলদাতা হলেন বাতিস্তুতা। আর্জেন্টিনা জিতল তাদের ইতিহাসের শেষ কোপা আমেরিকা। সিনিয়র পর্যায়ে জাতীয় দলের হয়ে শেষ আন্তর্জাতিক শিরোপাও এটি। এরপর আর্জেন্টিনা আর কোনো কোপা আমেরিকা জিততে পারেনি। ফাইনালে মেক্সিকোকে ২-১ গোলে হারায় আর্জেন্টিনা। দুই গোলের দুটিই আসে এই আর্জেন্টাইন বিস্ময়ের পা থেকে।

আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে ৭৮ খেলায় ৫৬ গোল করে তিনি দলের সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা। এছাড়া তিনি তিনটি বিশ্বকাপেও আর্জেন্টিনার হয়ে অংশগ্রহণ করেছেন। তিনি পরপর দুটি বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতায় হ্যাট্রিক করেছেন, যা একটি বিশ্ব রেকর্ড। ১৯৯৯ সালে, ফিফা বর্ষসেরা খেলোয়াড় পুরস্কারে তিনি তৃতীয় স্থান অর্জন করেন।


২০০৪ সালে তিনি ১২৫ জন জীবিত শ্রেষ্ঠ ফুটবলারের তালিকা ফিফা ১০০-তে স্থান পান। দূর্দান্ত ফিনিশিং, হেডিং এবং ফ্রি-কিক নেবার ক্ষমতার কারণে, তাকে তার সময়ের একজন অন্যতম পূর্ণ স্ট্রাইকার হিসেবে গন্য করা হয়। দিয়েগো মারাদোনা তার সম্পর্কে বলেছিলেন বাতিস্তুতা তার দেখা সেরা স্ট্রাইকার।

ফিওরেন্তিনার হয়ে তিনি কখনও ইতালীয় লীগ জিতেননি, কিন্তু ২০০০ সালে রোমায় যোগ দেবার পর তিনি অবশেষে সিরি এ চ্যাম্পিয়নশিপ জিততে সক্ষম হন।

বাতিস্তুতা তার পুরো ক্যারিয়ার জুড়ে মাঝে মাঝেই ভুগেছেন ইনজুরি সমস্যায়। তিনি অত্যন্ত শক্তি দিয়ে খেলতেন এবং নিজের সামর্থের চেয়ে বেশি করার চেষ্টা করতেন। এটিই ছিল মূলত তার ইনজুরি সমস্যার মূল কারণ। এর ফলে ম্যাচে তার প্লেয়িং টাইম কমে যেতে থাকে। বিশেষ করে ক্যারিয়ারের শেষের দিকে এই সমস্যাগুলো তাকে বেশি ভুগিয়েছে এবং ফলাফলস্বরুপ তিনি তার খেলোয়াড়ি জীবন থেকে বেশ আগেই অবসর নিতে বাধ্য হন। তিনি ২০০৫ সালের মার্চ মাসে ফুটবল খেলা থেকে পরিপূর্ণভাবে অবসর নেন। ২০০৬ ফিফা ওয়ার্ল্ডকাপের সময় একটি টেলিভিশনের ধারাভাষ্যকার হিসেবে কাজ করেছেন বাতিস্তুতা। বর্তমানে তিনি নিজের একটি কনস্ট্রাকশান কোম্পানি চালাচ্ছেন।

তথ্যসূত্র: উইকিপিডিয়া
মাওলানা আনোয়ারুল ইসলাম জাবেরী এর জীবনী
মাওলানা আশরাফ আলী হরষপুরী এর জীবনী - Biography of Maulana Ashraf Ali Harashpuri
ড. খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর রহঃ এর জীবনী
এম আবদুল আলীম
সেলিম রেজা নিউটন
রকিব হাসান এর জীবনী-Biography Of Rakib Hasan
সালমান এফ রহমান-Biography Of Salman F Rahman
আনোয়ার পারভেজ এর জীবনী- Biography of Anwar Parvez
জামাল আবদেল নাসের এর জীবনী - Biography of Gamal Abdel Nasser
কিম নামজুন এর পরিচয়, জীবনী,বয়স ও জন্মদিন - Kim Namjoon's identity, biography, age and birthday