কবি মুহিব খান এর বয়স, শিক্ষা ও জীবনী -  - Poet Muhib Khan's Age, Education and Biography -
Biography of poet Muhib Khan

কবি মুহিব খান এর জীবনী- Biography of poet Muhib Khan

ডাক নাম: মুহিব খান

বাবার নাম:  আতাউর রহমান খান 

জন্ম: অক্টোবর ১৯৭৯

জাতীয়তা: বাংলাদেশি

পেশা: কবি ও সংগীতশিল্পী

ইউটিউব: https://www.youtube.com

ফেসবুক: https://www.facebook.com

মুহিব্বুর রহমান খান বা মুহিব খান একজন বাংলাদেশি ইসলামি পণ্ডিত, কবি ও সংগীতশিল্পী। কবি হিসেবে তিনি বাংলা ভাষায় সর্বপ্রথম কুরআনের পূর্ণাঙ্গ কাব্যনুবাদ করেছেন। তিনি হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা।

জীবনী

পুরো নাম মুহিব্বুর রহমান খান, জন্ম কিশোরগঞ্জ শহরে ১৯৭৯ অক্টোবরে। ষোড়শ শতকে মুসলিম মধ্য এশিয় অঞ্চল থেকে পূর্বসূরিদের বাংলাদেশে আগমন। পারিবারিক ঐতিহ্য, ইসলামী শিক্ষা দাওয়াত ও সংগ্রামের ইতিহাসে সমৃদ্ধ। উপমহাদেশের বরেণ্য আলেমে দ্বীন, দার্শনিক, রাজনীতিক, প্রাজ্ঞ পার্লামেন্টারিয়ান মাওলানা আতাউর রহমান খানের কনিষ্ঠ পুত্র তিনি।

কওমি মাদ্রাসায় দাওরায়ে হাদিস শেষ করে তিনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে স্নাতক করেন। তিনি ‘সাপ্তাহিক লিখনী’র সাবেক নির্বাহী সম্পাদক। ২০০১ সালে তিনি লাল সাগরের ঢেউ নামে প্রথম কাব্যগ্রন্থ প্রকাশ করেন। এছাড়াও প্রাণের আওয়াজ, অচিনকাব্য, বারোটি সুন্দর গল্প প্রভৃতি তার রচনা। ২০১৬ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাজধানীতে তিনি বাংলাদেশের একটি রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল মুভমেন্ট বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেন এবং তিনি দলটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি। তার রচিত ইঞ্চি ইঞ্চি মাটি, কেন কেন সহ একাধিক সংগীত জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

মৌলবাদী ও সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস তদন্তে গণকমিশন কর্তৃক ২০২২ সালের একটি রিপোর্টে তার সম্পর্কে সমালোচনা করে বলা হয়, "হেফাজত নেতা মুহিব খান জিহাদী সংগীত, লেখালেখি, কবিতা ও অডিও-ভিডিওর মাধ্যমে যুব সমাজকে উগ্র জঙ্গিবাদের দিকে সর্বদা আহ্বান জানান। ইসলামি সঙ্গীত চর্চা ও ওয়াজের নামে যুব সমাজকে উগ্রতার দিকে নিয়ে যাচ্ছেন তিনি। গানে গানে তৈরি করেছেন অগণিত উগ্রবাদী ভক্ত। বর্তমানে তিনি ‘জাগ্রত কবি মুহিব খান’ নামে অধিক পরিচিত।

কর্মজীবনী

২০০৪ সালের ১৯ মার্চ তিনি কুরআনের কাব্যনুবাদ শুরু করেন। বিক্ষিপ্তভাবে ১০০ দিন কাজ করে তিনি প্রথম ১০ পারা সমাপ্ত করেন যা ২০০৬ সালের জুলাই মাসে গ্রন্থাকারে প্রকাশিত হয়। ২০০৬ এর পর থেকে ২০২০ পর্যন্ত ১৪ বছরে তিনি মাত্র পৌনে তিন পারার কাজ শেষ করেন। ২০২০ সালের করোনা মহামারীর সময়ে তিনি পুনরায় কুরআনের কাব্যনুবাদ শুরু করেন। ২০২০ সালের ১৬ এপ্রিল থেকে ২৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তিনি বাকি ১৭ পারার কাজ শেষ করেন। কাব্যানুবাদে তিনি যেসব বিষয়ের প্রতি লক্ষ রেখেছেন তা হলো সুরা ও আয়াতের ধারাবাহিকতা রক্ষা, আবেগ বর্জন করে মূলের সর্বোচ্চ কাছাকাছি থাকা, যথাসম্ভব কুরআনের ছান্দসিক বাক্যরীতি অক্ষুণ্ন রাখা, ভাষা ও ছন্দের গুণগত মান রক্ষা করা।

সাহিত্যকর্ম

তার সাহিত্যকর্মের মধ্যে রয়েছে:

লাল সাগরের ঢেউ

মেঘে ঢাকা সুন্নাত

তৃষ্ণা মেটে না মোর

মুরাকাবা (আত্নদর্শনের তত্বরহস্য)

অচিন কাব্য

প্রাণের আওয়াজ

প্রেম বিরহের মাঝে

নতুন ঝড়

পৃথিবীর পথে

আমার গান