এ বছর অমর একুশে বইমেলা ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত হবে না
বাংলা একাডেমি জানিয়েছে, করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে একুশে বইমেলার আয়োজন করা যাচ্ছে না।

বাংলা একাডেমি এর মহাপরিচালক হাবিবউল্লাহ শিরাজী রবিবার রাতে সাংস্কৃতিক বিষয়ক মন্ত্রনালয়কে সিদ্ধান্ত সম্পর্কে বলেছেন যে প্রকাশকদের চাপের পরেও ভাষা আন্দোলনের মাসে মেলাটি অনুষ্ঠিত হবে না।

পরিস্থিতির উন্নতি হলে নতুন সময়সূচী ঠিক করা হবে বলেও তিনি জানান।


মেলার অন্যতম আয়োজক, জ্ঞান ও শ্রুতিশিল প্রকাশক সমিতি বা বাংলাদেশের একাডেমিক অ্যান্ড ক্রিয়েটিভ পাবলিশার্স অ্যাসোসিয়েশন ৫ ই জানুয়ারীর একটি সভার সময় জানতে চেয়েছিল, ফেব্রুয়ারির শুরু থেকে না হলে মার্চের মধ্যেই এই মেলা আয়োজন করা হবে।

তাদের দাবির বিষয়ে জানতে চাইলে শিরাজী বলেছিলেন, আমরা বই মেলা আপাতত পিছিয়ে দিয়েছি। প্রকাশকদের সাথে আলোচনার পরে পরিস্থিতির আলোকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।


একাডেমি মহামারী পরিস্থিতি বিবেচনা করে এবার সাংস্কৃতিক বিষয়ক মন্ত্রকের কাছে গত মাসে বইমেলা স্থগিত করার আবেদন করেছিল।


তবে প্রকাশক সমিতি প্রস্তাবটি প্রত্যাখ্যান করে বলেছিল যে তারা প্রতিবছরের মতো একইভাবে উন্মুক্ত আকাশের নীচে মেলা সাজানোর চেষ্টা করতে চেয়েছিল।


একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, এর আগে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে চিঠি আদান প্রদান করেছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়টি আনুষ্ঠানিকভাবে মেলার আয়োজন করার পরামর্শ দিয়েছে। কিন্তু প্রকাশকরা ধারণাটি হাতছাড়া করে দিয়েছিলেন। 


শিরাজী বলেন, বই মেলা ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে অনুষ্ঠিত হবে কিনা তা আমরা স্থির করি নি। আলোচনা এবং অন্যান্য অনুষ্ঠানগুলি কীভাবে পরিচালনা করা যায় সে সম্পর্কে আমরা শীঘ্রই আমাদের পরিকল্পনা প্রকাশ করব।


সর্বশেষ উন্নয়নের বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে প্রকাশক সমিতির সভাপতি ফরিদ আহমেদ বলেন, “আমরা এ সম্পর্কে কিছুই জানি না। তিনি আরো বলেন, আমরা চেয়েছিলাম মেলা ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি থেকে শুরু হয়ে মার্চ মাসের শেষের দিকে। আমরা আমাদের প্রস্তাবটিও সাংস্কৃতিক বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করেছি। মন্ত্রণালয় পূর্ববর্তী তফসিল অনুযায়ী মেলা না রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কিনা তা আমরা জানি না।"



পরবর্তী খবর পড়ুন : চরফ্যাসনে গৃহবধু হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে মানববন্ধন

আপনার মতামত লিখুন :